হোটেল খালি নেই, তাই আটকে গেল সফর!

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট দলকে আতিথেয়তা দিতে স্বাগতিক দেশগুলো কত কিছুই না করে থাকে। ফ্র‍্যাঞ্চাইজিভিত্তিক অনেক টুর্নামেন্টও এখন পেয়ে থাকে আন্তর্জাতিক সিরিজ বা আসরের মত গুরুত্ব। বিশেষ করে আইসিসির টেস্ট খেলুড়ে দলগুলোর তো আন্তরিকতা বা চেষ্টার শেষ নেই।কিন্তু কেমন অনুভূত হবে, যখন শুনবেন একটি টেস্ট খেলুড়ে দেশে সফরে থাকা আরেক টেস্ট খেলুড়ে দেশের অভ্যন্তরীণ সফর আটকে আছে সফরে যাওয়ার শহরে কোনো হোটেলে আসন খালি নেই বলে?এমন ঘটনাই ঘটেছে জিম্বাবুয়েতে। স্বাগতিকদের বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ খেলতে পাকিস্তান জাতীয় ক্রিকেট দল এখন রয়েছে জিম্বাবুয়ে সফরে। জিম্বাবুয়ে ও অস্ট্রেলিয়াকে পরাভূত করে মাত্র কদিন আগেই জিতেছে ত্রিদেশীয় টি-২০ সিরিজের শিরোপা। সেই জয়ে ফুরফুরে মেজাজে থাকা পাকিস্তান দল এবার মুখোমুখি হল ভিন্ন এক অভিজ্ঞতার। কোনো হোটেল খালি না থাকায় বিলম্ব হল দলটির বুলাওয়ে সফর।

ত্রিদেশীয় টি-২০ সিরিজের ফাইনাল অনুষ্ঠিত হয়েছে হারারেতে। ঐ ম্যাচ শেষে সোমবার পাকিস্তান দল উড়াল দেওয়ার কথা বুলাওয়েতে, যেখানে শুক্রবার থেকে শুরু হবে স্বাগতিক জিম্বাবুয়ে ও সফরকারী পাকিস্তানের মধ্যকার পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ। কিন্তু বুলাওয়ে যাওয়ার আগে জানা যায়, জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট বুলাওয়েতে পাকিস্তান দলের জন্য কোনো হোটেল নির্ধারণ করতে পারেনি। আর এ কারণে নির্ধারিত দিনে পাকিস্তান রওয়ানা হতে পারেনি সিরিজ উদ্বোধনী ম্যাচের ভেন্যুর শহরে।

সিরিজকে সামনে রেখে বুধবার পর্যন্তও বুলাওয়ে পৌঁছাতে পারেনি সরফরাজ আহমেদের দল। হোটেলে আসন পাওয়া সাপেক্ষে সিরিজ শুরুর একদিন আগে অর্থাৎ বৃহস্পতিবার সকালে ফ্লাইটযোগে উড়াল দেওয়ার কথা বুলাওয়েতে। তাতে নতুন ভেন্যুর সাথে খাপ খাইয়ে নিতে একবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা অনুশীলন করতে পারবেন কেবল ঐদিন বিকেলে!

পাকিস্তান শহর পরিবর্তন করতে না পারলেও জিম্বাবুয়ে অবশ্য ঠিকই পৌঁছেছে বুলাওয়েতে। ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনাল না খেললেও হ্যামিল্টন মাসাকাদজার দল হারারে থেকে সোমবারই পাড়ি জমায় সেখানে। ১৩ জুলাই থেকে ২২ জুলাই বুলাওয়ের কুইন্স স্পোর্টস ক্লাব মাঠে অনুষ্ঠিত হবে ওয়ানডে সিরিজের ম্যাচগুলো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *