স্কটল্যান্ডকে হারিয়ে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বাংলাদেশ

পাপুয়া নিউ গিনিকে হারিয়ে শুরু। এরপর গ্রুপ পর্বে নেদারল্যান্ডস ও আমিরাতকে উড়িয়ে দেওয়া। সেমিফাইনালে স্কটল্যান্ডও বাধা হতে পারল না বাংলাদেশের মেয়েদের সামনে, ৪৯ রানে হারিয়ে দ্বিতীয় বারের মতো পা রাখল মেয়েদের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মূল পর্বে। ফাইনাল বাংলাদেশের মুখোমুখি আয়ারল্যান্ড, দুই দলই পেয়েছে বিশ্বকাপের টিকিট।

টসে হেরে বাংলাদেশের ব্যাটিংয়ের শুরুটা হয়েছিল দারুণ। ৭ ওভারের মধ্যেই ফিফটি তুলে ফেলেছিলেন বাংলাদেশের দুই ওপেনার শামীমা সুলতানা ও আয়েশা রহমান। কিন্তু এর পরেই উইকেট হারাতে শুরু করে বাংলাদেশ, ৫২ রানের মধ্যে ফিরে যান দুই ওপেনার। ৫৮ রানে ফারজানা ও ৬২ রানে রুমানাও ফিরে গেলে বেশ একটা ধাক্কাই খায় বাংলাদেশ।

তবে নিগার সুলতানা এক প্রান্ত ধরে রেখেছিলেন। ৪ উইকেট পড়ার পর ফাহিমা খাতুনের সঙ্গে গড়েছেন ২৭ রানের জুটি। এরপর সানজিদার সঙ্গে আবার গড়েছেন ৩২ রানের জুটি। ফাহিমা ১৫ ও সানজিদা আউট হয়ে গেছেন ১৯ রান করে। আর নিগার শেষ পর্যন্ত অপরাজিত ছিলেন ৩৬ বলে ৩১ রান করে। ২০ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে করেছে ১২৫ রান।

এই রান তাড়া করতে শুরুটা বেশ সতর্ক ছিল স্কটল্যান্ডের। ৮ রানে স্কোলসকে ফিরিয়ে প্রথম উইকেট এনে দেন স্কটল্যান্ড। এরপর দুই ব্রাইস, সারা ও ক্যাথরিন মিলে ৪৩ রান যোগ করেন। কিন্তু রান রেট তখন পাল্লা দিয়ে বেড়ে যাচ্ছিল। ৩১ রান করা সারাকে আউট করে ফাহিমা জুটিটা ভাঙেন। এরপর শুরু হয়ে যায় স্কটিশ মেয়েদের আসা যাওয়ার মিছিল। এর মধ্যে আবার হ্যাটট্রিকের সম্ভাবনা জাগিয়েছিলেন নাহিদা, ১৫তম ওভারের শেষ দুই বলে দুই উইকেট নিয়েছেন। তবে সেটা আর পাওয়া হয়নি। শেষ পর্যন্ত ২০ ওভার খেলে ৭ উইকেটে ৭৬ রানে ইনিংস শেষ করেছে স্কটল্যান্ড। ১০ রানে ২ উইকেট নিয়েছেন রুমানা, নাহিদা পেয়েছেন ১৬ রানে দুইটি। সালমা ও ফাহিমা পেয়েছেন একটি করে উইকেট।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *