শেষ টা ভাল ছিলো না বাংলাদেশের

জ্যামাইকা টেস্টের প্রথম দিন বাংলাদেশের জন্য মিশ্র অনুভূতির জন্ম দিবে। বোলাররা দিন শেষে চার উইকেট অর্জন করে নিলেও ভাগ্য সহায় থাকলে প্রাপ্তির খাতা হয়তো আরও সমৃদ্ধ হতে পারত। বিশেষ করে দিনের প্রথম সেশন উইকেট থেকে যথেষ্ট টার্ন ও বাউন্স পাচ্ছিল স্পিনাররা।

দুই উইন্ডিজ টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান স্মিথ ও পাওয়েলের জবাব ছিল না মিরাজের ঘূর্ণিতে। সাকিব আল হাসান আরেক প্রান্ত থেকে দারুন বোলিং করলেও উইকেটের দেখা পান নি। তবে উইন্ডিজদের হয়ে চোয়াল শক্ত করে লড়েছে ওপেনার ব্র্যাথওয়েট।

প্রায় তিন সেশন ব্যাট করে উইন্ডিজদের ম্যাচ ফিরিয়েছেন তিনি। প্রথম সেশনের ধাক্কা সামলেছেন শাই হোপের সাথে অর্ধশত রানের জুটি গড়ে। তবে দ্বিতীয় সেশনে তাইজুলের বোলিংয়ে হোপ বিদায় নিলে ব্যাকফুটে পড়ে উইন্ডিজরা।

তবে নতুন ব্যাটসম্যান হিসেবে ক্রিজে আসা শিমরন হেটমায়ারের প্রতিআক্রমন উইন্ডিজ ক্যাম্পে প্রান ফিরিয়ে আনে। দ্রুত রান তুলে ওপেনার ব্র্যাথওয়েটের কাজ সহজ করে দেন ২১ বছর বয়সী এই তরুন বাঁহাতি।

যার কারনে মাত্র ৩৮ স্ট্রাইক রেটে চাপ মুক্ত ব্যাটিং করে ব্যক্তিগত অষ্টম সেঞ্চুরি ও চলতি সিরিজে দ্বিতীয় সেঞ্চুরি তুলে নেন ব্র্যাথওয়েট। তবে দিনের শেষ বেলায় এসে ভুল করে বসেন তিনি।

মিরাজের বলে ব্যক্তিগত ১১০ রানে তাইজুলের হাতে ক্যাচ দিয়ে আউট হন তিনি। যদিও বাংলাদেশের মাথা ব্যাথার কারন হয়ে ক্রিজে আছেন হেটমায়ার।

ওয়ানডে মেজাজে খেলে দিনের শেষ বেলায় বাংলাদেশের নাগালে থাকা রান রেটে লাগাম ছাড়া করেন তিনি। দিনের শেষ ১২ ওভারে ৬৫ রান খরচা করে টাইগার বোলাররা।

রস্টন চেইজকে নিয়ে একশ স্ট্রাইক রেটে রান তুলে সেঞ্চুরির সম্ভাবনাও জাগান হেটমায়ার। মূলত হেটমায়ারের ৯৮ বলে ৮৪ রানের ইনিংসেই ৪ উইকেটে ২৯৫ রান নিয়ে শক্তিশালী অবস্থানে থেকে দিন শেষ করে স্বাগতিকরা।

হেটমায়ারের সাথে ১৬ রানে অপরাজিত আছেন রস্টন চেইজ।

বাংলাদেশের হয়ে বল হাতে ভালো করেছেন মেহেদি হাসান মিরাজ। তিন উইকেট শিকার করেছেন তিনি। তাইজুল তুলনামূলকভাবে খরুচে বোলিং করলেও হোপের গুরুত্বপূর্ণ উইকেট এনে দিয়েছেন তিনি।

অন্যদিকে উইকেট শুন্য থাকলেও সাকিব আল হাসান ছিলেন দুর্দান্ত। পেসারদের মধ্যে আবু জায়েদ রাহি রান আটকে রাখতে সক্ষম হলেও উইকেটের সুযোগ সৃষ্টি করতে পারেননি।

বাংলাদেশ একাদশঃ

সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক), তামিম ইকবাল, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, লিটন কুমার দাস, মুমিনুল হক, মেহেদী হাসান মিরাজ, তাইজুল ইসলাম, কামরুল ইসলাম রাব্বি, কাজী নুরুল হাসান সোহান, আবু জায়েদ রাহী।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ একাদশঃ

জেসন হোল্ডার (অধিনায়ক), ক্রেইগ ব্র‍্যাথওয়েট, রোস্টন চেজ, মিগুয়েল কামিন্স, শেন ডাওরিচ, শ্যানন গ্যাব্রিয়েল, শিমরন হেটমেয়ার, শাই হোপ, কিমো পল, কাইরন পাওয়েল, ডেভন স্মিথ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *