আফগান সিরিজের জন্য ১৫ সদস্যের দল ঘোষণা, আছেন যারা

আগামী মাস থেকে শুরু হতে যাচ্ছে টাইগারদের ব্যস্ত আন্তর্জাতিক মিশন। জুনের প্রথম সপ্তাহ থেকেই আফগানিস্তানের বিপক্ষে অ্যাওয়ে টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে ভারতে উড়াল দেবে টাইগাররা। যুদ্ধবিধ্বস্ত আফগানিস্তান হোম গ্রাউন্ড হিসেবে ভারতের মাটিই ব্যবহার করে যাচ্ছে। এই সফরকে সামনে রেখে টাইগার স্কোয়াড ঘোষণা করছে বিসিবি।

বাংলাদেশ স্কোয়াডঃ সাকিব আল হাসান, মাহমুদুল্লাহ, তামিম ইকবাল খান, সৌম্য সরকার, লিটন কুমার দাস, মুসফিকুর রহিম, সাব্বির রহমান, আরিফুল হক, মস্তাফিজুর রহমান, আবু হায়দার রনি, নাজমুল ইসলাম অপু, মেহেদী হাসান মিরাজ, মোসাদ্দেক, আবু জায়েদ রাহি, রুবেল হসাইন।

বিশ্ব একাদশের ভাইস ক্যাপ্টেন হলেন বাংলাদেশের ড্যাশিং ওপেনার তামিম ইকবাল

তামিম ভক্তদের। জন্য সুখবর আইসিসির বিশ্ব একাদশের, ভাইস ক্যাপ্টেন হলেন বাংলাদেশের ড্যাশিং ওপেনার তামিম ইকবাল,এটা সত্যি গর্বের বিষয়। আইসিসিকে ধন্যবাদ জানাই আমাদের সম্মানিত করার জন্য।সাকিব থাকলে সাকিবকেই এই পদ দেয়া হতো, কিন্তু সাকিব বিশ্ব একাদশ থেকে নিজের নাম সরিয়ে নিয়েছেন। সামনে ওয়েস্ট উইন্ডিজ আফগানিস্তান সিরিজের কথা মাথায় রেখে নিজের নাম আইসিসির একাদশ থেকে সরিয়ে নিয়েছেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার। তার জায়গায় ডাক পেয়েছেন নেপালের লেগ স্পিনার সান্দিপ, সব ঠিক ঠাক থাকলে বিশ্ব একাদশের অধিনায়কত্ব করবেন ইংল্যান্ডের ওয়ানডে এবং টি টোয়েন্টি অধিনায়ক ইয়েন মরগান।আইসিসির বিশ্ব একাদশ স্কোয়াড ১)তামিম ইকবাল(Vice-Captain)/বাংলাদেশ ২)লুক রন্কি/নিউজিল্যান্ড ৩)ইয়েন মরগান(Captain)/ইংল্যান্ড ৪)শোহেব মালিক/পাকিস্তান ৫)হার্দিক পান্ডেয়া/ভারত ৬)শাহীদ আফ্রিদী/পাকিস্তান ৭)দীনেশ কার্তিক/ভারত ৮)থিসারা পেরেরা/শ্রীলংকা ৯)রশিদ খান/আফগানিস্তান ১০)সান্দিপ/নেপাল ১১)M MCCLEHACHAN/নিউজিল্যান্ড শুভ কামনা তামিম

আইপিএলের ফ্লপদের তালিকায় ফেলানো হলো মাশরাফিকে

আইপিএল এমন একতা প্ল্যাটফর্ম যাকিনা কোন মানূষকে যেমনিভাবেই হুট করে করে দিতে পারে বড়লোক, থিক তেমনিভাবেই কোন মানুষ এই আইপিএল খেলেই হয়ে যান ফ্লপদের তালিকায়। তেমনি কিছু ক্রিকেটারদের তালিকা নিম্নে দেওয়া হলোঃ

টাইমল মিলস- আইপিএলের ১০ম আসরে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু ১২ কোটি টাকায় তাকে কিনে নেয়। কিন্তু ৫ ম্যাচ খেলে মাত্র ৫টি উইকেট শিকার করতে পেরেছিলেন তিনি।

যুবরাজ সিং-২০১৫তে দিল্লি ডেয়ারডেভিলস ১৬ কোটি টাকায় তাকে কিনে নেয়। ব্যাট হাতে সেই আসরে ১৪ ম্যাচে ২৪৮ রান করেছিলেন তিনি। যেখানে তার সর্বোচ্চ রান ৫৭। অন্যদিকে বল হাতে ৯ ওভার বোলিং করে ৭২ রান দিয়ে মাত্র ১ উইকেট পান তিনি।

পবন নেগি- ২০১৬তে দিল্লি ডেয়ারডেভিলস সাড়ে আট কোটি টাকায় তাকে কিনে নেয়। তবে এই আসরে ফ্লপ ছিলেন তিনি। ব্যাট হাতে ৮ ম্যাচে ৫৭ রান করেন তিনি। অন্যদিকে বল হাতে মাত্র ১ উইকেট শিকার করেন তিনি।

মোহাম্মদ আসিফ-২০০৮ সালে মোহাম্মদ আসিফকে ছয় লাখ ৫০ হাজার ইউএস ডলারে কিনে নেয় দিল্লি। সেই আসরে ৮ ম্যাচে ৩২ ওভার বল করে ২৯৬ রান দেন তিনি। সেই সঙ্গে প্রতি ওভারে ৯ রান রেটে মাত্র ৮টি উইকেট শিকার করেন তিনি।

মাশরাফি বিন মর্তুজা-২০০৯ সালে ছয় লক্ষ ইউএস ডলারে মাসরাফিকে কিনে নেয় কলকাতা নাইট রাইডার্স। আসরটিতে মাত্র ১টি ম্যাচে মাঠে নামেন তিনি। সেই ম্যাচে চার ওভার বল করে ৫৮ রান দেন তিনি। শেষ ওভারে ২১ রান প্রয়োজন ছিল ডেকান চার্জাসের। কিন্তু মাশরাফির করা শেষ ওভারে রানের সমীকরণ মিলিয়ে জয় পায় তারা।